বাংলাদেশে গ্রাহক চাহিদায় শীর্ষে ভিভো ওয়াই সিরিজের স্মার্টফোন

জুয়েল রানা, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক রিপোর্টার, ধুনট বার্তা :

বাংলাদেশের বাজারে গত এক দশকে দ্রুত বেড়েছে মোবাইল ফোনের বাজার। জিএসএমএ প্রতিবেদন অনুযায়ী মোবাইল মার্কেটে বাংলাদেশ হচ্ছে এশিয়া মহাদেশের পঞ্চম বৃহত্তম মার্কেট।

আকর্ষণীয় পারফরম্যান্স, দুর্দান্ত ক্যামেরা ফিচারসহ বিভিন্ন স্মার্ট অভিজ্ঞতা পেতে দেশের তরুণরা মোবাইল প্রযুক্তির দিকে আরও বেশি করে ঝুঁকছে প্রতিনিয়ত ।

গ্লোবাল স্মার্টফোন ব্র্যান্ড ভিভো’র ওয়াই সিরিজের স্মার্টফোন গ্রাহদের মধ্যে বিশেষ করে তরুণ প্রজন্মের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। দামও সাধ্যের মধ্যেই।

ভিভো ওয়াই ১ এস :
পুরানো ফিচার ফোন বদলে যারা স্মার্টফোন ধরছেন তাদের জন্য ভিভো ওয়াই ১এস দারুণ একটি স্মার্টফোন। এই ফোনে রয়েছে ২ জিবি র‌্যাম, ৩২ জিবি রম এবং ৪০৩০ মিলিএম্পিয়ার ব্যাটারির সমন্বয়ে এই স্মার্টফোনটি দীর্ঘ সময় ব্যবহারের জন্য দুর্দান্ত অভিজ্ঞতা দেয়।

অ্যান্ড্রয়েড ১০ এর ওপর ভিত্তি করে ভিভো ওয়াই ১ এস চলে ফানটাচ ও এস ১০.৫ এর মাধ্যমে। যা স্মার্টফোনটিকে ব্যবহার করা অনেক সহজ করেছে। ১৩ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরার এই স্মার্টফোনটি গ্রাহককে এআই ফটোগ্রাফির চমৎকার অভিজ্ঞতাও দিবে।

ভিভো ওয়াই ১২ এস :

যারা সামর্থের মধ্যে স্মার্টফোনের একটু পরিবর্তন চান তাঁদের পছন্দের স্মার্টফোন ওয়াই ১২এস। সাধ্যের মাঝে থাকা এই স্মার্টফোনটি বেশ আকর্ষনীয়। স্মার্টফোনটি আনলক করার জন্য আছে ‘ফেইস আনলক‘ এবং ‘সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট’, যা দেয় অধিক নিরাপত্তার দৃঢ় নিশ্চয়তা। ভিভো ওয়াই ১২ তে এসে আছে দুইটি ক্যামেরা। ১৩ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরার পাশাপাশি আছে ২ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। যা সুন্দর ছবি তোলার অনন্য অভিজ্ঞতা। সাথে রয়েছে এইচডি রেজুলেশনের পাশাপাশি ‘হালো ফুলভিউ’ ডিসপ্লে, যা ছবি বা মুভি দেখার আনন্দকে আরও বাড়িয়ে দিবে।

ভিভো ওয়াই ২০ (২০২১) :

গেমারদের জন্য ভিভো ওয়াই ২০ নিঃসন্দেহে প্রথম পছন্দ। ৪ জিবি র‌্যাম এবং ৬৪ জিবি রমের সমন্বয়ে এই স্মার্টফোনটি দেয় নিরবিছিন্ন গেমের দারুণ অভিজ্ঞতা। এই স্মার্টফোনেটিতেও আনলক করার জন্যে রয়েছে ‘সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট’ স্ক্যানার। স্মার্টফোনটিতে আছে ‘এআই ট্রিপল ম্যাক্রো ক্যামেরা’। ১৩ মেগাপিক্সেলের প্রধান ক্যামেরার পাশাপাশি আছে ২ মেগাপিক্সেলের বোকেহ ক্যামেরা এবং ২ মেগাপিক্সেলের সুপার ম্যাক্রো ক্যামেরা।

ভিভো ওয়াই ২০ জি: ভিভো ওয়াই ২০জি তে হেলিও জি ৮০ গেমিং প্রসেসরের পাশাপাশি আছে ৬ জিবির র‌্যাম এবং ১২৮ জিবি রম যা দীর্ঘ গেমিং সেশনের এক্সসিলেন্ট এক্সপেরিয়েন্স দেয়।

এতে আছে ৫০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি এবং ১৮ ওয়াট ফার্স্ট চার্জিং টেকনোলজি। তরুণদের বিশেষ পছন্দ এর আলট্রা গেম মোড। এর পাশাপাশি অসাধারণ ‘অডিও ইফেক্ট’ গেমিংয়ের শব্দকে বাস্তবের মত প্রাণবন্ত করে তোলে।

ভিভো ওয়াই ৫১ :

ক্যামেরা প্রযুক্তির জন্য দুর্দান্ত ভিভো ওয়াই ৫১ তে আছে ৪৮ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা, সাথে ‘এআই ট্রিপল ক্যামেরা’ সেট আপ। যেখানে আছে আলট্রা-ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা, সুপার ম্যাক্রো ক্যামেরা এবং সুপার নাইট ক্যামেরা।

এর সুপার নাইট ক্যামেরা ‘মাল্টিপল ফ্রেম নয়েজ ক্যানসেলেশন অ্যালগরিদম’ ব্যবহার করে যার মাধ্যমে স্বল্প আলোতেও সুন্দর ছবি উঠে। এতে আছে চার সেট স্টাইলিশ নাইট ফিল্টার। ভিভো ওয়াই৫১’তে আছে ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি রম, ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি ও ১৮ ওয়াট ফার্স্ট চার্জিং টেকনোলজি যা দেবে গ্রাহককে একটি স্মার্টফোন ব্যবহারের সর্বোচ্চ আনন্দের অভিজ্ঞতা।

ভিভো ওয়াই ৫৩এস:

সম্প্রতি বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করেছে ভিভো ওয়াই৫৩এস। ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার শক্তিশালী ব্যাটারির পাশাপাশি আছে ৩৩ ওয়াট ফ্ল্যাশ চার্জিং টেকনোলজি যা কন্টেন্ট ক্রিয়েটর আর পেশাদার ফটোগ্রাফারদের জন্য খুবই উপযুক্ত।

এতে আছে আই অটোফোকাস ফিচার যা ক্লিয়ার ফটোগ্রাফির অভিজ্ঞতা দেয়। ভিভো ওয়াই৫৩এস এ আছে ৬৪ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা, ২ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো এবং ২ মেগাপিক্সেলের বোকেহ ক্যামেরা যা ক্লিয়ার ও দুর্দান্ত ছবি তোলার অসাধারণ আনন্দ দেয়।